৫ তথ্য, যা বিমান সেবিকারা কখনওই শেয়ার করেন না!

ফ্লাইটের নানা প্রকৃতির যাত্রীর নানা বায়নাক্কা সামলানোই শুধু নয়, বিমান সেবিকাদের কাজের ফিরিস্তি বেশ লম্বা। সঙ্গে অবশ্যই রয়েছে যাত্রী সুরক্ষার দায়িত্ব।

অর্থাৎ, বিমানে কোনও সমস্যা হলে, কী ভাবে শান্ত রাখতে হবে যাত্রীদের, সে গুরুভারও তাঁদেরই। কিন্তু বেশ কয়েকটি এমন কাজও রয়েছে যা নিয়ে কখনওই কোনও তথ্য পাওয়া যায় না। রইল এমনই পাঁচ তথ্য—

১। সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিমান সেবিকাদের বেতন দেওয়া হয় একেবারেই ‘ফ্লাইট টাইম’ ধরে। অর্থাৎ, বিমানের দরজা বন্ধ হওয়ার সময় থেকে যতক্ষণ তাঁরা গন্তব্যে গিয়ে বিমান থেকে না নামছেন।

২। বেশি পরিমাণে মদ্যপান করে বিমানে উঠলে তা মস্তিষ্কের ক্ষতি করতে পারে। যে কারণে, বিমান সেবিকারা নজর রাখেন এ ব্যাপারেও।

৩। বিমানে জল চাইলে তা সব সময়েই সিল্‌ড বোতল থেকে খাওয়া উচিত। খোলা বোতল বা জগ থেকে ঢেলে দেওয়া জল না খাওয়াই ভাল।

৪। বিমানে ওঠার সময় সঙ্গে হ্যান্ড-স্যানিটাইজার থাকলে ভাল হয়। না হলে, কিছু খাবার আগে অবশ্যই হাত ধুয়ে নিন। চেষ্টা করুন সিটের পেছনের ট্রেতে খাবার না রাখতে।

৫। ফ্লাইট চলাকালীন জানালার শাটার খুলে রাখতে বলা হয়। এর কারণ, কোনও সমস্যা হলে তা যাতে তৎক্ষণাৎ চোখে পড়ে বিমান সেবিকাদের।