গতির ঝড় তুলবে এই ট্রেন

ঘন্টায় সর্বোচ্চ ৪০০ কিলোমিটার গতি তুলতে নতুন প্রজন্মের বুলেট ট্রেনের পরীক্ষা শুরু করেছে জাপান। আলফা-এক্স নামের এই বুলেট ট্রেনটি বানাবে কাওয়াসাকি হেভি ইন্ডাস্ট্রিজ এবং হিটাচি।

২০৩০ সালে সাধারণের যাতায়াতের জন্য উন্মুক্ত করার কথা রয়েছে বুলেট ট্রেনটি। এর আগে কয়েক বছর ধরে বুলেট ট্রেনটি পরীক্ষা করা হবে। আওমরি এবং সেনডাই শহরের মধ্যে রাত্রীকালীন পরীক্ষাও চালানো হবে– খবর ভার্জের।

উচ্চ গতিতে টিকে থাকতে আলফা-এক্স এ রাখা হয়েছে ৭২ ফুট লম্বা অ্যারোডায়নামিক নাক। নাকটি এমনভাবে নকশা করা হয়েছে যাতে ট্রেনের ওপর চাপ কমে আসে এবং শব্দ কম তৈরি হয়, বিশেষভাবে সুড়ঙ্গের মধ্য দিয়ে যাওয়ার সময়। পরবর্তীতে ট্রেনের জন্য ৫২ ফুট লম্বা আরেকটি নাক পরীক্ষা করা হবে।

ব্রেকিংয়ের জন্য ট্রেনের ছাদে রাখা হয়েছে হাওয়ার ব্রেক এবং ম্যাগনেটিক প্লেট। ২০৩০ সালে আলফা-এক্স উন্মোচন করা হলে এটি হবে বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুতগতির ‘বুলেট ট্রেন’। তবে সবচেয়ে দ্রুত গতির রেকর্ড আছে শাংহাইয়ের ম্যাগলেভ ট্রেনের, যা রেললাইনের ওপরে চুম্বকের সাহায্যে ভাসতে থাকে। চীনের এই ট্রেনটির সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় ৪৩১ কিলোমিটার।

২০২৭ সালে টোকিও এবং নাগোয়া’র মধ্যে নিজস্ব ম্যাগলেভ ট্রেন চালুর পরিকল্পনাও রয়েছে জাপানের। এই ট্রেনের সর্বোচ্চ গতিবেগ বলা হচ্ছে ঘন্টায় ৫০৫ কিলোমিটার।